২০৩১ ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপ হবে বাংলাদেশে

২০৩১ ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপ হবে বাংলাদেশে

২০৩১ ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপ হবে বাংলাদেশে

২০৩১ ক্রিকেট ওয়ানডে বিশ্বকাপ বাংলাদেশে হবে । আর মাত্র ১০ বছর! বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য সময়টা কি বেশ দীর্ঘ? একটা বিশ্বকাপের জন্য ১০ বছর অপেক্ষা করাই যায় । যাই হোক বাংলাদেশে আরও একটা বিশ্বকাপ হতে চলেছে । এটা বাংলাদেশ ক্রিকেট প্রেমী কোটি জনতার জন্য একটি দারুন খবর ।


এর আগেও দুটি ক্রিকেট বিশ্বকাপের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ । ২০১১ সালে ভারত-শ্রীলংকা এর সঙ্গে যৌথভাবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ । এর তিন বছর পর বাংলাদেশ হয়েছিল ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ । ২০৩১ সালে ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে ক্রিকেট বিশ্বকাপ আয়োজনের আবারও সুযোগ পেয়েছে বাংলাদেশ ।


ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) গতকাল অর্থাৎ ১৬ নভেম্বর ২০২৪ থেকে পরবর্তী সাত বছরের পুরুষদের আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের আয়োজকদের নাম ঘোষণা করেছে । আইসিসির এই ঘটনায় বেশ চমকও রয়েছে । ২০২৪ থেকে ২০৩১ সালের ক্রিকেট ক্যালেন্ডারের মধ্যে সব মিলিয়ে আটটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের আয়োজন হবে ১৪ টি দেশ । এই ১৪ টি দেশের ১১ টি পূর্ণ সদস্য এবং বাকি তিনটি সহযোগী সদস্য দেশ, যথা- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, নামিবিয়া এবং স্কটল্যান্ড ।


প্রথমবারের মতো আইসিসি বিশ্বকাপের আয়োজক হতে যাচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও নামিবিয়া । যদিও তারা এককভাবে আয়োজক হতে পারছেনা । এছাড়া ২৯ বছর পরে আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে পাকিস্তান । ২০২৫ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হবে পাকিস্তানের মাটিতে । যৌথভাবে ১৯৯৭ – ১৯৯৬ এর ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজন করলেও এর আগে কখনো এককভাবে আইসিসি টুর্নামেন্ট আয়োজন করেনি পাকিস্তান । উল্লেখ থাকে যে আইসিসির ঘোষণায় একমাত্র পূর্ণ সদস্য আফগানিস্তান এই সময়ের মধ্যে কোন টুর্নামেন্ট আয়োজন করার সুযোগ পায়নি ।


ইন্ডিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল এর প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী এবং ক্রিকেট উইন্ডিজ-এর প্রেসিডেন্ট রিকি স্কেরিটের সঙ্গে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট চেয়ারম্যান মার্টিন স্নেডেনের নেতৃত্বে একটা উপ-কমিটি স্বাগতিক দেশ গুলোকে বেছে নেয় । ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল এর ব্যবস্থাপনায় আগ্রহী দেশগুলোর ব্যাপারে যাচাই-বাছাই করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে তারা জানিয়েছেন । আইসিসি ঘোষিত পরিকল্পনায় ২০৩১ সালে ভারত এবং বাংলাদেশের যৌথ আয়োজনের ওয়ানডে বিশ্বকাপই ক্রিকেট ক্যালেন্ডারের আইসিসির শেষ আন্তর্জাতিক ইভেন্ট ।


এদিকে আরো একটা বিশ্বকাপের আয়োজক হতে পেরে বেশ খুশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড । বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নিবার্হী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন,“আমার মনে হয় আমাদের প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে । আইসিসির সবথেকে বড় প্রপার্টি বিশ্বকাপ । আইসিসি এবার সাত বছরের ইভেন্টগুলো সবাইকে ভাগ করে দিতে চেয়েছে । আগে বিগ থ্রি-এর মধ্যে ভাগাভাগি হয়েছে কিন্তু এবার তেমন হয়নি । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টুর্নামেন্ট নেওয়া যেমন আইসিসির পরিকল্পনার অংশ ছিল, সেটি তারা করেছে । আমরা বড় একটি আসরই পেয়েছি । তবে আমাদের এককভাবে কিছু পাওয়ারর আশা ছিল অবশ্যই । তবে আইসিসির কৌশলও দেখতে হবে, তারা সবাইকে দিতে চেয়েছে । এখানে জোর করলে হবেনা ” ।


বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নিবার্হী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী আরও বলেছেন, “বিশ্বকাপ আয়োজন করা মানে ভিন্ন কিছু । চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি (১৯৯৮-এ মিনি বিশ্বকাপ) বা এরকম কিছু অভিজ্ঞতা আমাদের আছে । ওয়ানডে বিশ্বকাপও করেছি আগে, তবে সেবার আয়োজক দেশ ছিল মোট তিনটি । আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হলো যে, সবথেকে বড় আসরে একটা পেয়েছি । আর এবার সহ-আয়োজক মাত্র দুটি দেশ” ।



আরও পড়ুনঃ ইসলামে ব্যবসা বাণিজ্য

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url